1. [email protected] : ProtikhonBarta :
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কবি গবেষক মুহাম্মদ শামছুল হক বাবু ও কবি ইশরাক আরা লাইজু নিমনির “অনুভবের কথামালা” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন। সাতগাঁও গণমূল্যায়ন পরিষদের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন,আবেদ সভাপতি,আলমগীর সাধারন সম্পাদক,লিটন সাংগঠনিক। দুই বাংলার জনপ্রিয় স্যাটেলাইট চ্যানেল এক্সপ্রেস নিউজ টিভির গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি আবেদ আহমেদ। সাংবাদিক কন্যা আদিবা সুলতানা আফরিন এর শুভ জন্মদিন আজ নওগাঁর সাপাহারে মাল্টা চাষে ব্যাপক সম্ভাবনা: বাজারজাত নিয়ে বিপাকে চাষীরা! শ্রীমঙ্গলে শীতার্ত ও অসহায় মানুষের পাশে তানিয়া আক্তার হবিগঞ্জে অস্ত্রসহ দুই ডাকাত আটক কারাগারে প্রেরণ নওগাঁর সাপাহারে রক্তদাতা সংগঠনের শীতবস্ত্র বিতরণ প্রতিক্ষণ বার্তার নামে প্রকাশিত মিথ্যা সংবাদ এর তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ। প্রকাশিত মিথ্যা সংবাদ এর বিরোদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ।
নোটিশ:
সাংবাদিক নিয়োগ চলছে.. যোগাযোগঃ 01719-763530, 01713-685053 ইমেল করুনঃ [email protected]

করোনা সংকটে মুমূর্ষু রোগীদের পাশে সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সামাজিক সংগঠন

  • প্রকাশিত : সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮৫ বার পড়া হয়েছে

মোঃ সেলিম উদ্দিন,সিলেট বিভাগীয় ব্যাুরো প্রধান

হাসবে জীবন বাঁচবে প্রাণ, আমরা করবো রক্তদান স্লোগানকে ধারণ করে মুমূর্ষু রোগীদের স্বেচ্ছায় রক্তদান করে যাচ্ছে ‘সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সামাজিক সংগঠন। করোনা সঙ্কটকে পাশ কাটিয়ে এ সংগঠনের তরুণরা ছুটে যাচ্ছেন সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন মেডিক্যালে। কোনো প্রকার সাহায্য সহযোগিতা না নিয়ে রক্তদান শেষে ফিরে আসছেন নিজ গৃহে বা কর্মস্থলে।

এমনটাই জানালেন ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জাকারিয়া আমিন। তিনি বলেন, বৈশ্বিক এক মহামারি যুদ্ধে বাংলাদেশ। আগে যেখানে একজন অসুস্থ মানুষ খুব সহজে ডাক্তার দেখানো থেকে শুরু করে সকল কাজ অনায়াসে করতে পারতেন এখন সেই কাজটি চাইলে এতো সহজে সমাধান করা যাচ্ছে না।

তাছাড়া ডায়াগনোসিস, অপারেশনসহ রক্তের প্রয়োজন মেটানো আরও দুঃসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রায় এক দশক ধরে হবিগঞ্জে সামাজিক , মানবাধিকার ও রাজনৈতিকভাবে সক্রিয় থাকার কারণে গুরুত্বপূর্ণ ইমার্জেন্সি অপারেশন রোগী, এক্সিডেন্ট রোগী, প্রসূতি মায়ের জন্যসহ রক্তের প্রয়োজনীয়তা আমাকে খুব ভাবিয়ে তোলে। এই সময়ে অসহায় মানুষের জন্য কিছু একটা করার তাগাদা অনুভব করলাম।

প্রায় তিনমাস আগে থেকে অনলাইনভিত্তিক কিছু উদ্যমী আত্মবিশ্বাসী মানবিক তরুণ নিয়ে শুরু করে সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সামাজিক সংগঠন। হবিগঞ্জ ও নিজ জন্মস্থান বাহুবলে প্রায় এক দশক ধরে তরুণদের নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার।

এবারো তার ব্যতিক্রম হয়নি। সকাল থেকে রাত এই সকল তরুণকে আমি পেয়েছি। যখন রক্তের প্রয়োজনে নক দিয়েছি নাওয়া খাওয়া রেখে এই সকল স্বেচ্ছাসেবী তরুণরা হাসপাতালে ছুটে আসছে। এই মহামারিতে মানুষ যেখানে নিজ ইচ্ছায় হাসপাতালে আসতে ভয় পায় সেখানে সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সামাজিক সংগঠনের সদস্যরা অন্যকে বাঁচানোর তাগিদে হাসপাতালে চলে আসেন।

জাকারিয়া আমিন বলেন, আমি সত্যিই এই সকল স্বেচ্ছাসেবী মানবতার সৈনিকের মানবিক বিবেক দেখে অবাক হয়ে যাই। আমরা এই ক্লাবকে নিয়ে অনেক বড় স্বপ্ন দেখছি। আমরা ইতোমধ্যে অনেক মুমূর্ষু মানুষের জন্য রক্ত দিয়ে সহায়তা করেছি। আমাদের ক্লাবের সদস্যরা রক্তের প্রয়োজন হলে নিজে গিয়ে হাসপাতালে রোগীকে রক্তদান করে আসেন। হবিগঞ্জে রক্তদাতা সংগঠন বা ব্লাড ব্যাংকের সংখ্যা জনসংখ্যার বিবেচনায় খুব অপ্রতুল। আর এই অপ্রতুলতার কারণে রক্তের অভাবে অনেক সময় অনেক প্রিয় মুখ হারিয়ে যায়।

তাছাড়া অনেক সময় প্রয়োজনীয় সময়ে রক্ত পাওয়া যায় না। তখন দরকার পড়ে ব্লাড ব্যাংক। তাই আমরা এই ক্লাবকে একটি স্বয়ং সম্পূর্ণ ব্লাড ব্যাংকে রুপান্তর করার স্বপ্ন দেখছি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন